আজ দীর্ঘস্থায়ী পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ

এই শতকের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী চন্দ্রগ্রহণ ঘটতে যাচ্ছে আজ রাতে। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার রাত ১১টা ১৩ মিনিট ৬ সেকেন্ড থেকে শনিবার ভোর ৫টা ৩০ মিনিট ২৪ সেকেন্ড পর্যন্ত চলবে এই পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ। মেঘের বাগড়া না থাকলে এই চন্দ্রগ্রহণ স্থায়ী হবে ১০৩ মিনিট। এই সময় পৃথিবী থেকে চাঁদকে দেখা যাবে এক অনন্য অপরূপ সুন্দর্যে।

সূর্য, পৃথিবী ও চাঁদ কক্ষপথে ঘুরতে ঘুরতে একই সরলরেখায় চলে এলে গ্রহণ হয়। এ সময় পৃথিবী যদি চাঁদ ও সূর্যের মধ্যে থাকে তখন চাঁদ পৃথিবীর ছায়ায় ঢাকা পড়ে যায়। একে বলা হয় চন্দ্রগ্রহণ। আবহাওয়া অধিদফতরের জলবায়ু মহাশাখা জানিয়েছে। এবারের চন্দ্রগ্রহণের সময় প্রায় পাঁচ ঘণ্টা আলো-আঁধারিতে ঢাকা থাকবে চাঁদ। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার রাত ১১টা ১৩ মিনিটে ৬ সেকেন্ড থেকে শনিবার ভোর ৫টা ৩০ মিনিট ২৪ সেকেন্ড পর্যন্ত এই গ্রহণ চলবে।

পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণের সময় পৃথিবী থেকে চাঁদকে দেখায় গাঢ় কমলা বা লাল রঙের। এ কারণে চাঁদের এ অবস্থাকে বলা হয় ‘ব্লাড মুন’। ঢাকার বিজ্ঞান জাদুঘরে দর্শনার্থীদের জন্য নিয়মিতভাবে সূর্যগ্রহণ ও চন্দ্রগ্রহণ দেখার আয়োজন করা হয়। বিজ্ঞান জাদুঘরের সিনিয়র কিউরেটর এ এস শফিউল আলম তালুকদার জানান, এবারও শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টা থেকে উন্মুক্ত থাকবে জাদুঘর। চন্দ্রগ্রহণ উপলক্ষে থাকবে প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শনী ও সেমিনার।

আকাশ মেঘমুক্ত থাকলে গ্রহণ দেখারও আয়োজন হবে।এর আগে ২০০০ সালের ১৬ জুলাই ১০৬ মিনিট স্থায়ী চন্দ্রগ্রহণ দেখা গিয়েছিল। আর পরবর্তী পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণটি দেখা যাবে ২০২৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর। তবে তা এবারের মতো এত দীর্ঘ সময় ধরে হবে না। আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, এই গ্রহণের সময় প্রায় পাঁচ ঘণ্টা আলো-আঁধারিতে ঢাকা থাকবে চাঁদ। এ সময় পৃথিবী থেকে চাঁদকে দেখাবে গাঢ় কমলা বা লাল রঙের। যাকে বলা হচ্ছে ব্লাড মুন।

বিরল না হলেও এমন দৃশ্য দেখতে অপেক্ষায় থাকতে হয় অনেক বছর। মহাকাশ গবেষক ও বিজ্ঞানীরা বলছেন। বিশ্ববাসী দীর্ঘস্থায়ী চন্দ্রগ্রহণ প্রত্যক্ষ করতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার রাত ১১টা ১৩ মিনিট শুরু হয়ে এই গ্রহণকাল ১০৩ মিনিট। ১৮ বছর পর দীর্ঘস্থায়ী এই চন্দ্রগ্রহণ নিয়ে বাংলাদেশেও আগ্রহের কমতি নেই। আলো-আঁধারের এই দৃশ্য দেখতে আয়োজন করা হয়েছে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের। ঢাকার বিজ্ঞান জাদুঘর ও বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটারের সামনে এই চন্দ্রগ্রহণ দেখার আয়োজন করা হয়েছে।

এর আগে এমন চাঁদ দেখা গিয়েছিল ২০০০ সালের ১৬ জুলাই। সে সময় ওই গ্রহণ স্থায়ী হয়েছিল ১০৬ মিনিট। আর পরবর্তী পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণটি দেখা যাবে ২০২৮ সালে ৩১ ডিসেম্বর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *