ইয়েমেনে শিশুদের হত্যায় ভুল স্বীকার সৌদি জোটের

চলতি বছরের আগস্ট মাসে ইয়েমেনের একটি স্কুল বাসে বিমান হামলার ঘটনাকে ‘ভুল’ হিসেবে স্বীকার করেছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট। দেশটির হুদি বিদ্রোহীদের দমনে গঠিত সৌদি-আরব আমিরাতের জোটের ঐ হামলায় ৪০ শিশুসহ ৫১ জন নিহত হয়েছিলো।

 

সৌদির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এসপিএতে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, এই ভুলের জন্য যৌথ সামরিক জোট দুঃখ প্রকাশ করছে এবং হতাহতদের পরিবারের প্রতি সমানুভূতি, সমবেদনা ও সংহতি জানাচ্ছে।

 

ইয়েমেনের সাদা প্রদেশে গত ৯ আগস্ট ঐ স্কুল বাসটিতে সৌদি জোটের বিমান হামলায় গোলা বর্ষণ করা হয়। এতে ঐ হতাহতের ঘটনা ঘটে। হামলার পর বিশ্বব্যাপী ব্যাপক সমালোচনা ও নিন্দার মুখে তদন্ত কমিটি গঠন করে জোটবদ্ধ দেশগুলো। তদন্ত দলের ১ সেপ্টেম্বর, শনিবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই হামলাকে ‘ভুল’ হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়।

 

হামলার দিন জোটের মুখপাত্র কর্নেল তুর্কি আল মালকি এই হামলার স্বপক্ষে বিবৃতি দিয়েছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন যে, তার বাহিনী যৌক্তিক আর যথার্থভাবেই সন্ত্রাসী পরিকল্পনাকারী এবং নিয়ন্ত্রকদের ওপর হামলা করে।

 

তবে তদন্ত দল বলছে ভিন্ন কথা। ঘটনা বিশ্লেষণে যৌথ দল জিয়াত বলছে, এই হামলার পেছনে যারা দায়ী তাদেরকে বিচারের মুখোমুখি করা উচিত। দলটির আইন উপদেষ্টা মনসুর আহমেদ আল মনসুর গতকাল সৌদি রাজধানী রিয়াদের সাংবাদিকদের বলেন, এই হামলার ঘটনার যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তার জন্য হামলা সংশ্লিষ্টদের দায়ী করে শাস্তি দেওয়ার জন্য জোটবদ্ধ দেশগুলোর পদক্ষেপ নেওয়া উচিত বলে মনে করে জিয়াত।

 

তথ্যসুত্র: ইন্টারনেট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *