বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেছেন উত্তরাঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহে সময় লাগবে আরও এক মাস

 

 

বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে আরও এক মাস বিদ্যুৎ সরবরাহে সমস্যা বিদ্যমান থাকবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। আজ শনিবার বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) এর ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জেনারেল ম্যানেজার সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা উল্লেখ করেন। সম্মেলনটি বিআরইবি সদর দফতরে অনুষ্ঠিত হয়।

অপরদিকে ভোলায় ওভারলোডেড ট্রান্সফরমার ও হবিগঞ্জে একটি সাবস্টেশন তৈরির বিষয় সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রীর সামনে উপস্থাপন করা হয়। সম্মেলনে আরইবির পক্ষ থেকে বলা হয়, ভোলায় ওভারলোডেড ট্রান্সফরমারের কারণে ভোলায় যে কোন সময় বিদ্যৎ বিপর্যয় দেখা দিতে পারে। বর্তমানে ভোলায় অবস্থিত ২৫০ মেগাওয়াট বিদ্যাৎকেন্দ্রটি স্থানীয়ভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে। হবিগঞ্জের বিষয়ে সভায় জানানো হয় যে, ট্রান্সফরমার ওভারলোডের কারণে নতুন গ্রাহকদের বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে এসব বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন যে এসব বিষয় আরও আগে পরিকল্পনা করা উচিৎ ছিল। এসময় বিদ্যুৎ বিতরণে সঠিক পরিকল্পনার অভাবকেই দায়ী করেন প্রতিমন্ত্রী

এ বিষয়ে তিনি প্রতিমন্ত্রী বলেন যে, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে শিফট পরিবর্তনের কারণে যে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।

তার কারণে আরও কিছুদিন উত্তরাঞ্চলে বিদ্যুৎ সমস্যা বিদ্যমান থাকবে।তবে প্রতিমন্ত্রী এও উল্লেখ করেন যে, সিরাজগঞ্জে অবস্থিত বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোতে গ্যাস সরবরাহ বৃদ্ধি করে এ সমস্যা মোকাবেলা করা হবে।

তবে সাংবাদিকদের অন্য প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন যে জ্বালানী বিষয়ক নীতিমালার কোন প্রয়োজন নেই।বিদ্যুৎ, গ্যাস সহ প্রতিটি ক্ষেত্রের জন্য পৃথক নীতিমালা রয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) মঈন উদ্দিন আরইবি বিষয়ে এক উপস্থাপনা দিয়ে সম্মেলন শুরুতে আরইবি বিষয়ে নানা তথ্য তুলে ধরেন।

উপস্থাপনায় তিনি উল্লেখ করেন ১৯৭৮ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত আরইবির গ্রাহক সংখ্যা ছিল ৭৪ লাখ।

বর্তমান সরকারের আমলে গত ৯ বছরে নতুন গ্রাহক হিসাবে সংযোগ প্রদান করা হয়েছে আরও ১ কোটি ৫ লাখ।

দুইদিনব্যাপী এই সম্মেলনের এবারের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হল “হয়রানিমুক্ত বিদ্যুতের অঙ্গীকার”। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে নতুন ৭০ টি উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়িত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে আরইবি। এ পর্যন্ত দেশের ৫৮ টি উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়িত ঘোষণা করেছে আরইবি। তবে এখনও পর্যন্ত সারাদেশে প্রায় ৪০ লাখ গ্রাহক বিদ্যুৎ সংযোগের অপেক্ষায় রয়েছে।

সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ, পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানী অব বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মাসুম আল বেরুনী, ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শফিক উদ্দিন, নর্দান ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকিউল ইসলাম সহ অন্যান্যরা।

One thought on “বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেছেন উত্তরাঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহে সময় লাগবে আরও এক মাস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *