এবার ভারতকেও হারাল বাংলাদেশ

মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে নারীদের এশিয়া কাপ। এবারের এই আসরের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে হার মানে বাংলাদেশের মেয়েরা। প্রথম ম্যাচ হারলেও পরের ম্যাচে শক্তিশালী পাকিস্তানকে হারিয়ে ঘুরে দাঁড়ায় সালমাবাহিনী। আর আজ বুধবার নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে শক্তিশালী ভারতকেও হারিয়ে দিয়েছে সালমা-রুমানারা।

ভারতের বিপক্ষে এটি বাংলাদেশের প্রথম জয়। আর ৭৯তম টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের ২৪তম জয়। এর আগে ৮ ম্যাচে ভারতের মুখোমুখি হয়ে প্রত্যেকটিতেই হার মেনেছে বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
ভারত : ১৪১/৭ (২০ ওভারে)
বাংলাদেশ : ১৪২/৩ (১৯.৪ ওভারে)
ফল : বাংলাদেশ ৭ উইকেটে জয়ী
ম্যাচসেরা : রুমানা আহমেদ।

কুয়ালালামপুরের কিনরারা একাডেমি ওভালে ভারতের ছুড়ে দেওয়া ১৪২ রানের টার্গেট বাংলাদেশ ছুঁয়ে ফেলে ১৯.৪ ওভারে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে। এই জয়ের ফলে ফাইনালে যাওয়ার পথে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। শেষ দুই ম্যাচে তুলনামূলক দুর্বল প্রতিপক্ষ মালয়েশিয়া ও থাইল্যান্ডকে ভালো ব্যবধানে হারাতে পারলে বাংলাদেশের ফাইনাল খেলার সম্ভাবনা থাকবে।

৩ ম্যাচের ২টিতে জিতে ৪ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে বাংলাদেশ রয়েছে চতুর্থ স্থানে। সমান ম্যাচ থেকে ৪ পয়েন্ট করে সংগ্রহ করে ভারত, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান যথাক্রমে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

বুধবার ১৪২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ২৯ রানের মাথায় আয়শা রহমানকে হারায় বাংলাদেশ। তিনি ১০ বলে ১ চার ও ১ ছক্কায় ১২ রান করে ফিরে যান। ৪৫ রানের মাথায় হাতখুলে খেলতে থাকা শামীমা সুলতানার উইকেট হারায় টাইগ্রেসরা। শামীমা ২৩ বল খেলে তার ৭টিতে চারে পরিণত করে ৩৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন। দলীয় ৪৯ রানের মাথায় নিগার সুলতানা ব্যক্তিগত ১ রানে আউট হলে কিছুটা বিপাকে পরে বাংলাদেশ। সেখান থেকে দলকে টেনে তোলেন রুমানা আহমেদ ও ফারজানা হক। তারা দুজন চতুর্থ উইকেটে ১১.৫ ওভারে ৯৩ রান তুলে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। ফারজানা ৪৬ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৫২ রানে ও রুমানা ৩৪ বলে ৬ চারে ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন।

বল হাতে ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেওয়ার পর ব্যাট হাতে অপরাজিত ৪২ রান করে অবধারিতভাবে ম্যাচসেরা হন রুমানা আহমেদ।

তার আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ২৬ রানেই ২ উইকেট হারিয়ে বসে ভারত। ১১ রানের মাথায় মান্দানা এলবিডব্লিউ হওয়ার পর ২৬ রানের মাথায় মিতালি রাজ রান আউটে কাটা পড়েন। সেখান থেকে দলে টেনে তোলার চেষ্টা করেন পূজা ভাস্কর, হারমানপ্রিত কাউর ও দীপ্তি শর্মা। পূজা ২০ বলে ৪ চারে ২০ রান করেন। কাউর করেন ৩৭ বলে ৬ চারে সর্বোচ্চ ৪২ রান। দীপ্তির ব্যাট থেকে আসে ৩২ রান। যা তিনি ২৮ বলে ৫ চারে করেন। এ ছাড়া মেষরাম অপরাজিত ১৪ ও মিতালি রাজ ১৫ রান করেন। তাতে ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রানের লড়াকু সংগ্রহ পায় তারা।

বল হাতে বাংলাদেশের রুমানা আহমেদ ৩টি উইকেট নেন। ১টি উইকেট নেন সালমা খাতুন। বাকি তিনটি উইকেট আসে রান আউটের খাত থেকে।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ তাদের চতুর্থ ম্যাচে থাইল্যান্ডের মুখোমুখি হবে। আর ৯ জুন শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক মালয়েশিয়া। মালয়েশিয়া তিন ম্যাচে মাঠে নেমে এখনো একটিতেও জিততে পারেনি। অন্যদিকে থাইল্যান্ড তিন ম্যাচে মাঠে নেমে জিতেছে একটিতে। তাদের একমাত্র জয় মালয়েশিয়ার বিপক্ষেই এসেছে।

এবারের এই মহিলা এশিয়া কাপে ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, মালয়েশিয়া ও থাইল্যান্ড নারী ক্রিকেট দল অংশ নিয়েছে। লিগ পদ্ধতিতে খেলা হচ্ছে। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দুটি দল ফাইনাল খেলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: