কলকাতা, আসাম, আগরতলায় মুক্তি পাচ্ছে ভূবন মাঝি

‘ভুবন মাঝি’ চলচ্চিত্রটি একজন সাধারণ সংগ্রামী মানুষের জীবনে বিদ্রোহী হয়ে ওঠার গল্প। গল্পের শুরু ১৯৭০ সালে শেষ হয় ২০১৩ সালে। ১৯৭০ সালের নির্বাচনের কিছুদিন আগে গ্রাম থেকে কুষ্টিয়া শহরে ডিগ্রি পড়তে আসে নহির। দেশজুড়ে নির্বাচন আর স্বাধীনতার আন্দোলন তাকে বিন্দুমাত্র বিচলিত করেনি। বরং চাচাতো বোনের বান্ধবী ফরিদা বেগম আর থিয়েটার ছিল তার ধ্যানজ্ঞান। কিন্তু ধীরে ধীরে স্বাধীনতাসংগ্রাম ও বাংলাদেশের জন্মের বহু ঐতিহাসিক ঘটনার সাক্ষী হয়ে যায় নাহির।

 

২০১৭ সালের ৩ মার্চ বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছিল ফাকরুল আরেফীন খান পরিচালিক ‘ভুবন মাঝি’ ছবিটি। এরপর ছবিটি অংশ নিয়েছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক উৎসবে। আজ (৩ আগস্ট) ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে ভারতের কলকাতায়। পরিচালক অরিন্দম শীলের প্রযোজনা ও পরিবেশনা প্রতিষ্ঠান থেকে ছবিটি ভারতে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে।১৯৭১ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত বিস্তৃত ইতিহাস ও প্রেম, বিদ্রোহ ও মানবিকতা, স্বাধীনতা ও সংস্কৃতি নিয়েই গড়ে উঠেছে ‘ভুবন মাঝি’র গল্প।

 

গড়াই ফিল্মসের ব্যানারে নির্মিত ‘ভুবন মাঝি’ ছবির কাহিনি ও চিত্রনাট্য লিখেছেন এবং পরিচালনা করছেন ফাকরুল আরেফীন খান। এটি তার পরিচালিত প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। ছবিতে অভিনয় করেছেন কলকাতার অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় এবং বাংলাদেশের অপর্ণা ঘোষ, মাজনুন মিজান, কাজী নওশাবা আহমেদ, সুমিত সেন, সুষমা সরকার, মামুনুর রশীদ, শুভাশীষ ভৌমিক, ওয়াকিল আহাদ, লালিম হক।

 

গত ২০ এপ্রিল ভারতে ‘ভুবন মাঝি’ চলচ্চিত্র সেন্সর ছাড়পত্র পায়। কলকাতায় ছবি মুক্তি নিয়ে অনুভূতি জানাতে গিয়ে ফাখরুল আরেফিন খান বলেন, ‘আমার এই ছবির সংগীতপরিচালনা করেছেন প্রয়াত সংগীতব্যাক্তিত্ব কালিকা প্রসাদ। তার স্বপ্ন ছিল কলকাতায় ছবিটি মুক্তির। এছাড়াও আমার নিজেরও ইচ্ছে ছিল। ভাবতে ভালো লাগছে কালিকা প্রসাদের স্বপ্নকে পূরণ করতে পারছি। ছবিটি বাণিজ্যিক ভাবে কলকাতা, আগরতলা ও আসামসহ বিভিন্ন জায়গায় একযোগে মুক্তি পাচ্ছে।’

 

তিনি আরও বলেন, ‘এটি আমার পরিচালনায় নির্মিত প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রের সঙ্গে আমার অনেক আবেগ আর অনুভূতি জড়িয়ে আছে। বিশেষ করে কালিকা প্রসাদের স্মৃতি। তাকে ভাই বা বন্ধু যা-ই বলি না কেন, তিনি অনেক পরিশ্রম করে আমার ছবিটির সংগীতায়োজন করেছিলেন। এখন ছবিটি ভারতের মুক্তি পাচ্ছে। কিন্তু তিনি বেঁচে নেই। তিনি বেঁচে থাকলে আজ আরও বেশি খুশি হতাম।’

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *