পদ্মা সেতুর ৬০০ মিটার দৃশ্যমান হবে এ সপ্তাহেই

মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের স্টকইয়ার্ড থেকে জাজিরা প্রান্তে রওনা হয়েছে ৪র্থ স্প্যানটি। আগামী ১৪ বা ১৫ মে পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তের ৪০ ও ৪১ নম্বর পিয়ারের (খুঁটি) ওপর বসানো হবে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের এ স্প্যান। এর মধ্য দিয়ে পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামো দৃশ্যমান হবে ৬০০ মিটার।

শনিবার সকালে ভাসমান ক্রেন ‘তিয়ান-ই’ মাওয়া প্রান্ত থেকে স্প্যান নিয়ে গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা হয়। আজকালের মধ্যে এটি নির্ধারিত স্থানে পৌঁছে যাবে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে যথাসময়ে ৪০ ও ৪১ নম্বর খুঁটির ওপর ৪র্থ স্প্যানটি বসানো হবে বলে দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে।

পদ্মা সেতু কর্মযজ্ঞে থাকা প্রকৌশলী আহমেদ আহসান উল্লাহ মজুমদার জানান, আগামী ১৪ বা ১৫ মে স্প্যানটি খুঁটির ওপর বসানো হবে। তবে সবকিছু নির্ভর করছে অনুকূল আবহাওয়ার ওপর। বৈশাখের শেষলগ্ন হলেও প্রতিদিনই ঝড়-বৃষ্টি হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, পঞ্চম স্প্যানটি এখন মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে চূড়ান্ত রঙের কাজ চলছে। সম্পূর্ণ প্রস্তুত হলে সেটি বসবে ৪১ ও ৪২ নম্বর খুঁটির ওপর।

সংশ্নিষ্ট প্রকৌশলীরা জানিয়েছেন, জাজিরা প্রান্তের ৪০ ও ৪১ নম্বর খুঁটি দুটি শতভাগ প্রস্তুত। বৈরী আবহাওয়া, পদ্মার ঢেউয়ের মধ্যেও অন্যান্য খুঁটির পাইলিং কাজ অব্যাহত থাকায় ভারী ভারী যন্ত্রাংশ পদ্মা সেতুর চ্যানেলে রয়েছে। তাই চতুর্থ স্প্যানটি গন্তব্যে পাঠাতে বিলম্ব হলেও ৩৬শ’ টন ওজন ক্ষমতার ‘তিয়ান-ই’ ভাসমান ক্রেনটি ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ও ৩ হাজার ১৪০ টন ওজনের ৪র্থ স্প্যানটি বহন করে গতকাল সকাল ৯টার পর মাওয়া প্রান্ত থেকে রওনা হয়। সন্ধ্যার আগে ক্রেনটি মাঝ পদ্মায় সেতুর চ্যানেলে গিয়ে নোঙরে থাকবে। আজ সকালে আবারও গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা হয়ে সন্ধ্যার আগে পৌঁছতে না পারলে সোমবার সকালের মধ্যেই জাজিরা প্রান্তের ৪০ ও ৪১ নম্বর খুঁটির কাছে গিয়ে নোঙর করবে।

এদিকে দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে পদ্মা সেতুর খুঁটি নির্মাণের কাজ। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করার লক্ষ্যে দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছেন শ্রমিক ও প্রকৌশলীরা।

পদ্মা সেতুর এক নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, প্রায় সাড়ে ৫ মাসের ব্যবধানে ৩টি স্প্যান বসানোর মাধ্যমে ইতিমধ্যে পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামো ৪৫০ মিটার বা আধা কিলোমিটার দৃশ্যমান। আগামী ১৫ মে চতুর্থ স্প্যান বসানো হয়ে গেলে পদ্মা সেতুর মূল অকাঠামো দৃশ্যমান হয়ে উঠবে ৬০০ মিটার। পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করার লক্ষ্য নিয়ে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *