পাস্তুরিত দুধ পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট

বিশেষজ্ঞ কমিটি দিয়ে বাজারে থাকা পাস্তুরিত তরল দুধ পরীক্ষা করার আগামী এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য খাদ্য মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, বিএসটিআই কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

জনস্বার্থে করা এক রিটের শুনানি নিয়ে সোমবার বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার এই আদেশ দেন।

একইসঙ্গে এ সংক্রান্ত আইসিডিডিআর,বির প্রতিবেদনটিও এক মাসের মধ্যে আদালতে দাখিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি হাইকোর্ট পাস্তুরিত তরল দুধের নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রশাসনের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে স্বাস্থ্য সচিব, খাদ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বিএসটিআইয়ের মহাপরিচালক, আইসিডিডিআর,বি এবং পুলিশ মহাপরিদর্শককে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

পাস্তুরিত দুধের মান নিয়ে আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশের (আইসিডিডিআর,বি) নতুন এক গবেষণার বরাত দিয়ে গত ১৬ জুন বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়, স্থানীয় বাজারের পাস্তুরিত দুধের ৭৫ শতাংশের বেশি সরাসরি পানের জন্য নিরাপদ নয়।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত এসব প্রতিবেদন যুক্ত করে হাইকোর্টে রিট করেন আইনজীবী মো. তানভীর আহমেদ। আদালতে রিটের পক্ষে তানভীর আহমেদ নিজেই শুনানি করেন। তার সঙ্গে ছিলেন আব্দুল্লাহ আবু সাঈদ, ব্যারিস্টার মহিউদ্দিন হানিফ ও মো.জাহাঙ্গীর হোসেন।

আদেশের পর আইনজীবী তানভীর সাংবাদিকদের জানান, বিশেষজ্ঞ কমিটি দিয়ে পাস্তুরিত তরল দুধ পরীক্ষার পর এক মাসের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করতে খাদ্য সচিব, স্বাস্থ্য সচিব ও বিএসটিআইটি কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আইসিডিডিআর, বি’র গবেষণা প্রতিবেদনটিও আদালতে দাখিল করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া পাস্তুরিত দুধের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রশাসনের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে হাইকোর্ট রুলও জারি করেছেন জানিয়ে তানভীর বলেন, আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে স্বাস্থ্য সচিব, খাদ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বিএসটিআইয়ের মহাপরিচালক, আইসিডিডিআর, বি এবং পুলিশ মহাপরিদর্শককে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। সুত্রঃ সমকাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *