ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে প্রস্তুত: রাহুল গান্ধী

আগামী লোকসভা নির্বাচনে দল এক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসলে তিনি দেশটির প্রধানমন্ত্রী হতে প্রস্তুত আছেন বলে জানিয়েছেন ভারতের কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। মঙ্গলবার বেঙ্গালুরুতে সমৃদ্ধি ভারত কনফারেন্সে উপস্থিত থেকে তিনি একথা জানান।

২০১৯ সালে কংগ্রেস ক্ষমতায় এলে কে প্রধানমন্ত্রী পদে বসবেন? গণমাধ্যমের এই প্রশ্নের উত্তরে রাহুল জানান, ‘এটা নির্ভর করছে কংগ্রেস দল নির্বাচনে কতটা ভালো ফল করতে পারবে তার ওপর। ২০১৯ সালের নির্বাচনে কংগ্রেস যদি একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় তবে অবশ্যই আমি প্রধানমন্ত্রী হতে প্রস্তুত’।

এনিয়ে দ্বিতীয়বারের জন্য রাহুল জানালেন যে তিনি প্রধানমন্ত্রীর পদে বসতে তৈরি আছেন। এর আগে গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে যুক্তরাষ্ট্রের বার্কলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাহুলকে প্রশ্ন করেছিলেন ২০১৯ সালের সাধারণ নির্বাচনে কংগ্রেস জিতলে তিনি কি প্রধানমন্ত্রী হতে রাজি আছেন? উত্তরে রাহুল জানান প্রধানমন্ত্রী হতে ‘পুরোপুরি প্রস্তুত’, যদি দল চায়’।
রাহুল এদিন এও জানান যে, আগামী বছরের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি কোন মতেই জয়লাভ করতে পারবে না। এমনকি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও বারানসী থেকে পরাজিত হবেন। কারণ তিনি বিরোধীদের সম্মিলিত ঐক্যের মুখোমুখি হতে পারবেন না। আমি তাঁর মুখ দেখেই বুঝতে পারছি। আর তিনিও এটা ভালো জানেন। বিজেপি উত্তরপ্রদেশে এককভাবে পাঁচটির বেশি আসন পাবে না। উত্তরপ্রদেশের সাম্প্রতিক উপনির্বাচনেই বিরোধী দলগুলির সম্মিলিত শক্তির পরিচয় লক্ষ্য করা গেছে’।

রাজনীতিতে নারীদের ক্ষমতায়নের বিষয়ে কংগ্রেস সভাপতির অভিমত, তিনি চান আগামী দশ বছরে দেশের অন্তত দশটি রাজ্যে কংগ্রেসের নারী মুখ্যমন্ত্রী রাজ্য পরিচালনা করুন। রাহুল জানান, ‘আমি জানি আমার এই মন্তব্যে অনেক মানুষই বিরক্ত বোধ করবেন, বিশেষ করে সিনিয়র নেতারা। কিন্তু এই এজেন্ডাই আমি স্থির করতে চলেছি’। কর্নাটকে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্য কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মাত্র এক ডজন (১২ জন) নারী প্রার্থীকে টিকিট দেওয়া নিয়েও অসন্তোষ প্রকাশ করেন রাহুল। আগামী শনিবার এই রাজ্যে নির্বাচন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: