মাদার তেরাসার চাইল্ড হোম থেকে শিশু বিক্রির অভিযোগ

চলতি মাসের প্রথমদিকে কয়েক হাজার ডলারের বিনিময়ে কমপক্ষে পাঁচটি শিশু বিক্রির অভিযোগে পুলিশ ঝাড়খন্ড রাজ্যের রাজধানী রাঁচির একটি মাদার তেরেসা হোমসের একজন নারী নান ও এক কর্মীকে গ্রেফতার করে রাজ্য পুলিশ।

হোম থেকে সদ্যজাত শিশু নিখোঁজ হওয়া বিষয়ে স্থানীয় শিশু কল্যাণ কর্তৃপক্ষ পুলিশকে অবহিত করলে এই কেলেঙ্কারির কথা উঠে আসে।

গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে, এই অভিযোগের পর মাদার তেরেসা চ্যারিটি থেকে পরিচালিত দেশের সব চাইল্ড কেয়ার হোম অবিলম্বে পরিদর্শনে সকল রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ভারতে অবৈধভাবে শিশু দত্তক নেয়া একটি বড় ধরণের ব্যবসা। সরকার বলছে, দেশটিতে প্রতি বছর এক লাখেরও বেশি শিশু নিখোঁজ হচ্ছে।

ভারতের নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রী মেনকা গান্ধী এক বার্তায় বলেন, মাদার তেরেসা চ্যারিটি থেকে পরিচালিত দেশের সব চাইল্ড কেয়ার হোম অবিলম্বে পরিদর্শনে সকল রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, আগামী মাসের মধ্যে সকল চাইল্ডকেয়ার প্রতিষ্ঠানকে নিবন্ধিত হতে হবে এবং কেন্দ্রীয় দত্তক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যুক্ত হতে হবে।

 

 

গত ডিসেম্বরে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট সকল চাইল্ডকেয়ার প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধন এবং এতিমদের কেন্দ্রীয় দত্তক ব্যবস্থাপনার আওতায় আনার নির্দেশ দেয়।

মাদার তেরেসা ছিলেন একজন আলবেনিয়ান-বংশোদ্ভুত ভারতীয় ক্যাথলিক সন্ন্যাসিনী। সারাবিশ্বের দুস্থ মানুষের ভরসার ও মমতাময়ী মায়ের প্রতিমুর্তি ছিলেন যে নারী তিনিই মাদার তেরেসা। সুদীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে তিনি দরিদ্র, অসুস্থ, অনাথ ও মৃত্যুপথযাত্রী মানুষের সেবা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *