রাজীবের ভাইদের ক্ষতিপূরণ: হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত

দুই বাসের ঘষায় হাত হারানোর পর মারা যাওয়া কলেজ ছাত্র রাজীব হোসেনের দুই ভাইকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। আজ মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার সদেস্যর আপিল বিভাগের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত চেয়ে বিআরটিসির করা আবেদনের ওপর শুনানি শেষ করার পর আজ এ আদেশ দেওয়া হলো। আদেশে রায় স্থগিত করে এ দুর্ঘটনার প্রকৃত কারণ জানতে হাইকোর্টকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যে কমিটি আগামী ৩০ জুনের মধ্যে প্রকৃত কারণ অনুসন্ধান করে প্রতিবেদন দাখিল করবে।

আপিল বিভাগের বেঞ্চে অন্য সদস্যরা হলেন- বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার। আদালতে বাস মালিকদের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন আবদুল মতিন খসরু ও এ বি এম বায়েজীদ। তাদের সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার মুনীরুজ্জামান। অন্যদিকে, রাজীবের পরিবারের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

গত ৮ মে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ রাজীবের দুই ভাইকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনের মালিককে নির্দেশ দেন।

বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনের মালিক প্রত্যেককে ২৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে এক মাস সময় বেধে দেন হাইকোর্ট। কিন্তু গত ১০ মে বিআরটিসি ২৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল আবেদন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: