২০২৬ বিশ্বকাপের আয়োজক যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো-কানাডা

২০২৬ সালের ফুটবল বিশ্বকাপ যৌথভাবে আয়োজন করবে যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো ও কানাডা। এই প্রথম তিন দেশে হবে বিশ্বকাপ।

ভোটে মরক্কোকে পেছনে ফেলে ২০২৬ বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো ও কানাডা। উত্তর আমেরিকার এই তিন দেশ পেয়েছে ১৩৪ ভোট (৬৭ শতাংশ), মরক্কো পেয়েছে ৬৫ ভোট (৩৩ শতাংশ)।

বুধবার ফিফা কংগ্রেসের সভা শেষে ২০২৬ বিশ্বকাপের যৌথ আয়োজক হিসেবে তিন দেশের নাম ঘোষণা করে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।​

এদিন রাশিয়ার মস্কোতে ৬৮তম ফিফা কংগ্রেসে সংস্থাটির ২১১ সদস্য দেশের ২০০ ভোট কাস্ট হয়েছে। জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১০৪ ভোট।

যৌথভাবে বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পেয়ে যুক্তরাষ্ট্র ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কার্লোস কর্ডিরো বলেছেন, ‘২০২৬ সালের ফিফা বিশ্বকাপ আয়োজনের বিশেষ সুযোগ করে দেওয়ায় ধন্যবাদ। ফুটবলই আজ একমাত্র বিজয়ী।’

২০২৬ সালের টুর্নামেন্ট হবে সবচেয়ে বড় বিশ্বকাপ। এই টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো অংশ নেবে ৪৮ দেশ। ৩৪ দিনে ম্যাচ হবে মোট ৮০টি। যার ৬০টি হবে যুক্তরাষ্ট্রে, মেক্সিকো ও কানাডায় হবে ১০টি করে ম্যাচ।

বিশ্বকাপটি হবে মোট ১৬টি শহরে। যার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ১০টি, বাকি ৬টি মেক্সিকো ও কানাডার মধ্যে ভাগাভাগি হবে।

ফাইনাল হবে নিউ ইয়র্কের ৮৪ হাজার ৯৫৩ আসন বিশিষ্ট মেটলাইফ স্টেডিয়ামে। স্টেডিয়ামটি এনএফএলের দল নিউ ইয়র্ক জায়ান্টস ও নিউ ইয়র্ক জেটসের ঘরের মাঠ।

মেক্সিকো (১৯৭০ ও ১৯৮৬) ও যুক্তরাষ্ট্র (১৯৯৪) দুই দেশই এর আগে বিশ্বকাপ আয়োজন করেছে। আর ২০১৫ সালে কানাডায় হয়েছিল মেয়েদের বিশ্বকাপ।

বৃহস্পতিবার রাশিয়ায় শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপের ২১তম আসর। আর ২০২২ সালে কাতারে বসবে বিশ্বকাপের ২২তম আসর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *