৫ টাকায় বাসে চড়ার সুযোগ করে দিছি, তারপরেও কিসের এত লাফালাফি! প্রধানমন্ত্রী

৫ টাকায় বাসে চড়ার সুযোগ করে দিছি, ছাত্রদের জন্য হাফ ভাড়ার ব্যাবস্থা করে দিছি। তারপরেও কিসের এত লাফালাফি! কিসের এত ভাংচুর! আরো কি চায় এদেশের ছাত্ররা! এইযে সাধারন ছাত্ররা এত সুন্দর রাস্তায় নেমে আন্দোলন করছে, এই রাস্তা কে তৈরি করে দিয়েছে? এই আওয়ামিলীগ সরকার দিয়েছে।

চুন থেকে পান খসলেই অবরোধ,ভাংচুর, আগুন! তাহলে আমি বাস ভাড়া বাড়িয়ে ১০০ টাকা করে দেই? ছাত্রদের ভাড়া দ্বিগুন করে দেই?
তেলের দাম বাড়িয়ে দেই!? এই যে লাখ লাখ ব্যারেল তেলে ভর্তুকী দিচ্ছি এইটা কী কারো চোখে পরেনা!? দেই তাহলে আমি ভর্তুকী বন্ধ করে!?

নাকী শাহজাহান কে বলে দিব বাস চলাচল বন্ধ করে দিতে ??! বন্ধ করে দিলে পরে যেন আবার কেউ এসে আন্দোলন না শুরু করে বলে “আমাদের বাস ফেরত চাই,আমাদের বাস ফেরত চাই”বাস চলাচল আপনাদের পছন্দ নয় তাই বাস চলাচল বন্ধ করে দিচ্ছি! এর দায়ভার কিন্তু আমরা আর পরে নিতে পারবোনা বলে দিলাম, খুব সাফ কথা!

এই যে বাচ্চা বাচ্চা ছেলেরা যখন লাঠি হাতে নিয়ে একটার পর একটা বাস ভাংগা শুরু করলো তখন আমার টেনশনে চোখে ঘুম নেই! রাস্তায় যে কোন কিছু হয়ে যেতে পারে ছেলেদের! সারাদিন আমি জেগে থেকে খোঁজ খবর নিলাম! তারপর বাচ্চা ছেলাগুলোকে বাড়িতে পাঠিয়ে দিয়ে,লাশ দুটোকে ওদের বাবা মায়ের কাছে পৌছে দিয়ে একটু হাফ ছেরে বাঁচলাম, চিন্তা মুক্ত হলাম !

রাস্তায় চলাচল করলে দূর্ঘটনা থাকবেই, কেউ দূর্ঘটনার উর্দ্ধে নয়! যে দুই একটা বাচ্চা ছেলে মারা গেছে ওরা চাইলেই আরো সাবধানতা অবলম্বন করে ফুটপাত থেকে দূরে কোথাও দাড়াতে পারতো! তারপরেও আমি তদন্ত কমিটি করে দিয়েছি, তারা ব্যাপারটা দেখছে !

এখন রিপোর্ট হাতে এলেই আমরা বুঝতে পারবো আসলেই বাসের কোন যান্ত্রীক ত্রুটি ছিল কিনা,নাকি চলন্ত বাসের ভিতরে কোন বিএনপি-জামাতের লোক ছিল যারা কিনা বাস হাইজ্যাক করে ছাত্রদের গায়ের উপুরে উঠিয়ে দিয়েছে!

-প্রধানমন্ত্রী

সুত্র: বাংলামেইল৭১

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *